লা মাদ্রে। গ্রেজিয়া দেলেদ্দা

LA MADRE

GRAZIA DELEDDA

বিশ্বসাহিত্যের দরবারে গ্রেজিয়া দেলেদ্দার নাম অতি পরিচিত। ইতালির এই বিখ্যাত লেখিকা ১৯২৬ সালে মূলত এই লা মাদ্রে বইটির উতকর্ষের বিচারে নোবেল পুরষ্কার পান। লা মাদ্রের কাহিনী গড়ে উঠেছে এক যাজক ও তার মাকে নিয়ে। অপরিসীম কষ্ট স্বীকার করে মা তার ছেলে পলকে বড় করেছেন। বড় হয়ে পল যাজকত্ব গ্রহন করে। এ অতি কঠিন দায়িত্ব। মায়ের মনে সদাই ভয় পল তার কর্তব্যের সীমা পেরিয়ে পাপের পথে যেন পা না বাড়ায়। কিন্তু সুন্দরী এজনিসের সঙ্গে দেখা হয় পলের। একদিকে কর্তব্য অন্যদিকে প্রেমের আকুতির মধ্য দিয়ে গল্প বেড়ে ওঠে। এবং শেষ হয় একটি করুণ মৃত্যুতে। সে মৃত্যু পলের মায়ের। গ্রেজিয়া দেলেদ্দা মনস্তাত্ত্বিক বিশ্লেষণে অসাধারণ। গোটা কাহিনীর কেন্দ্রে রয়েছে মা। অন্যান্য চরিত্রগুলিকে সমান সহানুভূতির সঙ্গে ঔপন্যাসিক নির্মাণ করেছেন। জীবনের দ্বিধা সংশয় ও আকাংক্ষাগুলিকে চমতকারভাবে ধরতে পেরেছেন বলেই এই বই এতোখানি আদৃত।

DOWNLOAD

Popular Posts